বিদেশি এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে বঙ্গবন্ধুর ভাষ্কর্য স্থাপনের ষ’ড়যন্ত্র করছে নাস্তিকরা। বঙ্গবন্ধু ধার্মিক ছিলেন। তার পরিবারও ধার্মিক, এমনকি ওনার পূর্বপুরু’ষরাও ধার্মিক ছিলেন।

বঙ্গবন্ধু কখনোই ভাষ্কর্যের পক্ষে ছিলেন না। আর সেজন্যই নাস্তিকরা ওনার ভাষ্কর্য নির্মাণের চেষ্টা চা’লিয়ে যাচ্ছে।

আজ মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) পুরানা পল্টনে ইসলামী আন্দোলনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জরুরি সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন দলটির জৈষ্ঠ নায়েবে আমির ও চ’রমোনাই পীর মাওলানা ফয়জুল করিম।

তিনি আরও বলেন, ভাষ্কর্য বি’রোধী আন্দোলনের পেছনে আমাদের কোনও রাজনৈতিক উদ্দেশ নেই। আমি মনে করি ভাষ্কর্য স্থাপন করতে বিদেশি এজেন্ডা বাস্তবায়নে মাঠে নেমেছে তারা।

মাওলানা মামুনুল হক, বাবুনগরী এবং ফয়জুল করিমের বি’রুদ্ধে করা মা’মলার প্রক্রিয়া বন্ধ না করা হলে ক’ঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।

নামাজরত মু’সলিম কৃষকদের পাহারা দিচ্ছেন শিখরা

ভারতে নতুন কৃষি আইনের প্র’তিবাদে রাস্তায় নেমে এসে অসা’ম্প্রদায়িকতার নজির গড়লেন কৃষকরা। পাঞ্জাব ও হরিয়ানার কৃষকদের স’ঙ্গে আন্দোলনে অংশ নিয়েছে মু’সলিম সংগঠনও।

গতকাল সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিওতে দেখা যায়, কৃষক আন্দোলনে যোগ দেওয়া কয়েকজন মু’সলমান নামাজ পড়ছেন এবং তাদের নিরাপত্তা দিচ্ছেন শিখ সম্প্রদায়ের লোকজন।

ভারতে রাজধানী দিল্লিতে তীব্র শীতের মধ্যেও এ ধরনের দৃশ্য দেখে প্রশংসা করেছেন নেটিজেনরা। অনেকেই বলছেন, ভারতে যারা ধর্ম উ’গ্রতা ছড়ায়, এই দৃশ্য তাদের মুখে কুলুপ এঁটে দেবে।

এদিকে আজ থেকে সারা ভারতে অ’বরোধ শুরু হয়েছে। কৃষক সংগঠনগুলোর ডাকা ভারত অ’বরোধে পশ্চিমবঙ্গেও মিশ্র প্রভাব পড়েছে। সকাল থেকেই কলকাতাসহ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে অ’বরোধ বি’ক্ষো’ভে যান চলাচল ব্যাহত হয়েছে।

কোথাও রেল অ’বরোধ হয়েছে। সকালের দিকে যান চলাচল কিছুটা কম থাকলেও বেলা বাড়তেই রাস্তায় নেমেছে স’রকারি-বেস’রকারি বাস ও অন্যান্য যানবাহন।

খাস কলকাতায় যাদবপুরে ট্রেন অ’বরোধ করেন বাম সমর্থকরা। শ্যামবাজার পাঁচমাথার মোড়ে জমায়েত করেন বাম কর্মী-সমর্থকরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here