অভিনেত্রী সানা খান ধর্মের টানে মিডিয়া ছাড়ার ঘোষণা দেন গেলো অক্টোবরে। সাবেক এই ‘বিগ বস’ প্রতিযোগী এবার গুজরাতের মৌলানা মুফতি আনাসকে বিয়ে করলেন সানা।

সানার বিয়ের খবরে অনেকেই অবাক হয়েছেন। পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে সুরাটে ঘরোয়া অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিয়ে সারেন সানা খান।

জেনে নিন কে এই মৌলানা মুফতি আনাস?

মওলানা মুফতি গুজরাটের সুরাট এর একজন ধর্মগুরু এবং ইসলামিক স্কলার। জানা যাচ্ছে বিগ বস খ্যাত এজাজ খান এর মাধ্যমে মুফতির স’ঙ্গে প্রথম আলাপ সানার।

এর পরেই তাদের প্রেমের সম্প’র্ক কিভাবে এগোয় তারা তারা জানাননি। কিন্তু এটুকু জানা গিয়েছে মুফতি পেশায় একজন ব্যবসায়ী। তবে সানার অনুরাগীদের জল্পনা মৌলানা মুফতি কে বিয়ে করবেন বলেই তিনি কিছুদিন আগে গ্ল্যামার দুনিয়া ত্যাগ করে ধর্মে মন দিয়েছেন।

২০ নভেম্বর সুরাটে তাদের বিয়ের প্রাইভেট সেরেমনি হয়। এই বিয়েতে কেবলমাত্র সানা ও মুফতির পরিবারের সদস্য এবং বন্ধুরা উপস্থিত ছিলেন। তবে জানেন কি সানাকে একটি বিশেষ উপহার দিয়েছেন মুফতি।

জানা যাচ্ছে একটি খুব দামী হীরের আংটি সানাকে উপহার দিয়েছেন তিনি। স্বপ্নার বিয়ের সম্প’র্কে তার অনুরাগীরা যথেষ্ট আ’গ্রহ দেখিয়েছেন‌‌। সেই কৌতূহল মেটাতে তিনি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছিলেন, আল্লাহর জন্যই প’রস্পরকে ভালোবেসেছি। আল্লাহর জন্যই প’রস্পরকে বিয়ে করেছি।

প্রার্থনা করি যাতে এই দুনিয়ায় আল্লাহ আমাদের একস’ঙ্গে রাখেন। জন্নতেও যেন আমাদের একস’ঙ্গে রাখেন এই কামনা করি। বিয়েতে একটি জমকালো লাল রঙের লেহেঙ্গা পরেছিলেন সানা।

কিন্তু সেই লেহেঙ্গার দাম শুনে আঁতকে উঠেছেন নেটিজেনরা। জানা যাচ্ছে সেই সোনালী সুতো দিয়ে কাজ করা লাল রঙের লেহেঙ্গার দাম প্রায় ১ লক্ষ টাকা। আর এই দাম জানার পরেই নানা রকমের প্রশ্ন উঠছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলড হতে হচ্ছে অভিনেত্রীকে।

বিনোদন জগত ছাড়ার কথা ঘোষণা করার সময় সানা বলেছিলেন তিনি গ্ল্যামার জগত সম্পূর্ণভাবে ত্যাগ করছেন। কিন্তু এই কথা বলার পরেও কিভাবে তিনি এত দামি লেহেঙ্গা পরে বিয়ে করছেন তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

তাহলে কি রুপোলি দুনিয়ার গ্ল্যামারের মোহ ত্যাগ করতে পারেননি অভিনেত্রী? প্রশ্ন তুলছেন নেটিজেনরা। অনেকেই বলছেন, এই অর্থ জনসেবার কাজেও ব্যবহার করতে পারতেন কারণ তিনি এখন ধর্মের পথ অনুসরণ করছেন বলে জানিয়েছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here