বগুড়ার শাজাহানপুরে গো’পনে এক নববধূর গোসলের ভিডিও ধারণ করায় রিপন নামে এক ব’খাটে যুবককে (২৪) গ্রে’ফতার করেছে পু’লিশ। সোমবার দিনগত রাত ২টার দিকে উপজে’লার আমরুল ইউনিয়নের নগরহাট এলাকা থেকে তাকে গ্রে’ফতার করা হয়।

গ্রে’ফতারকৃত রিপন উপজে’লার আড়িয়া ইউনিয়নের কাঁটাবাড়িয়া দক্ষিণপাড়ার নুরুল ইসলামের ছেলে।

রোববার (২৯ নভেম্বর) দুপুরে উপজে’লার আড়িয়া ইউনিয়নের কাঁটাবাড়িয়া দক্ষিণপাড়ার এক নববধূর গোসলের দৃশ্য গো’পনে ভিডিও ধারণ করছিলেন রিপন। এ সময় নববধূ তাকে দেখতে পেয়ে চি’ৎকার দিলে রিপন তার মুখ চে’পে ধরে শ্লী’লতাহা’নির চেষ্টা করে এবং কুপ্রস্তাব দেয়।

কুপ্রস্তাবে রাজি না হলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভিডিও ছেড়ে দেওয়ার হু’মকি দেয় এবং কাউকে কিছু বললে বড় ধরনের ক্ষ’তি করার হু’মকি-ধামকি দেন রিপন। একপর্যায়ে নববধূর চি’ৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে রিপন পা’লিয়ে যান। এ ঘ’টনায় সোমবার ওই নববধূর মা বা’দী হয়ে শাজাহানপুর থানায় মা’মলা দা’য়ের করেন।

স্থানীয়রা জানান, রিপন একজন মা’দকসেবী ও ব’খাটে। এর আগেও তিনি প্রতিবেশী এক স্বা’মী-স্ত্রীর বিশেষ মুহূর্তের ভিডিও ধারণ করেছিলেন। রিপনের স্বজনরা স্থানীয়ভাবে প্রভাবশালী হওয়ায় ভু’ক্তভোগীরা ভ’য়ে আর লোকলজ্জার কারণে আইনের আশ্রয় নিতে পারেননি। এভাবে একের পর এক এ ধরনের অ’পকর্ম করে যাচ্ছিলেন রিপন।

শাজাহানপুর থানার ওসি আজিম উদ্দীন মা’মলা দা’য়েরের বি’ষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গ্রে’ফতারকৃত আ’সামিকে আ’দালতের মাধ্যমে জে’লহাজতে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here