রাজ্যের ছেলেমে’য়েদের কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে উদ্যোগী হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার নবান্ন সভাঘরে অনগ্রসর সম্প্রদা’য়ের স’ঙ্গে বৈঠকে তিনি ঘোষণা করেন, কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্ক থেকে বাইকের জন্য সহজ শর্তে ঋ’ণের ব্যবস্থা করে দেবে স’রকার। যাতে তাঁরা শাড়ি বা অন্যান্য সামগ্রী বিক্রি করতে পারেন তাঁরা।

এ দিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন,”২ লক্ষ ছেলেমে’য়েকে নেব। স’রকারি ব্যাঙ্ককে দিয়ে হবে না। কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্ক থেকে বাইক কেনার জন্য ঋ’ণ দেওয়া হবে তাঁদের। বাইকের পিছনে থাকবে বক্স। তাতে শাড়ি নিয়ে গেলেন বিক্রি করতে। ফল নিয়ে বিক্রি করতে পারেন।”

মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন,”এরকম ২ লক্ষ ছেলেমে’য়েকে বাইক দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে স’রকার। এক একটা পরিবারে ৫ জন থাকলে উপকৃত হবেন ১০ লক্ষ মানুষ।”

কোভিড পরিস্থিতিতে বিভিন্ন মেলা না হওয়ায় স’ঙ্কটে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পীরা। এনিয়ে মমতার আশ্বাস, কালী পুজো কে’টে যাওয়ার পর মেলার অনুমতি দেবে স’রকার। সামাজিক দূরত্ব মেনেই তা হবে। দরকারে কয়েকটা মেলা অয়োজন করবে রাজ্য।

এর পাশাপাশি তফশিলী ও নমঃশূদ্র সম্প্রদা’য়ের ২৫০০০ জনকে নিঃশর্তে দেওয়া হল পাট্টা। মমতা স্মরণ করিয়ে দেন, ১৯৮৭ সালে তিনি ছিলেন যাদবপুরের সাংসদ। তখনই নিঃশর্ত পাট্টার উদ্যোগ নিয়েছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here