চট্টগ্রামে পারিবারিক কলহের কারণে পৃথক ঘটনায় দুই গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। শনিবার (১৪ নভেম্বর) দুপুরে নগরের ডাবলমুরিং থানার চারিয়াপাড়ায় ও পাহাড়তলী থানার হরি মন্দির এলাকায় এ ঘটনা দুটি ঘটে বলে জানায় পুলিশ।

জানা যায়, শনিবার দুপুরে পারিবারিক কলহের কারণে নগরের ডাবলমুরিং থানার চারিয়াপাড়ায় গফুর ম্যানশনের ভাড়া বাসায় গৃহবধূ ফারজানা আকতার পপি (২৭) আত্মহত্যা করেছেন।

এছাড়া একই দিন পাহাড়তলী থানার হরি মন্দির এলাকার এজাহার মিয়ার ভাড়া বাসায় শাহেদা বেগম (৩০) নামে আরেক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেন। তিনিও পারিবারিক কলহের কারণে আত্মহত্যা করেন বলে জানান স্বজনরা।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) পুলিশ ফাঁড়ির নায়েক মো. আমির হোসেন জানান, দুপুরের পরপর দুই গৃহবধূর লাশ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে আনা হয়। দাম্পত্য কলহ থেকে তারা আত্মহত্যা করেছেন বলে তাদের পরিবার

ইসরাইলকে স্বীকৃতি দিতে চাপ আসছে: ইমরান খান

ট্রাম্পের মধ্যস্থতায় আরব-আমিরাত, বাহরাইনসহ বেশ কয়েকটি মুসলিম দেশ ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করেছে।

সামনে আরও ৫ থেকে ৬টি মুসলিম রাষ্ট্র ইসরাইলের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করবে এমন বার্তা দেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

এমনকি সৌদি আরবও একই পথে হাঁটছে বলে আভাস দেন তিনি। এমন পরিস্থিতিতে ইসরাইলকে স্বীকৃতি দিতে বন্ধুপ্রতিম দেশগুলো থেকে প্রতিনিয়ত চাপ আসছে বলে জানালেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

ইমরান খান বলেছেন, ‘ইসরাইলকে রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার জন্য চাপের মুখে রয়েছি আমরা। কিন্তু ফিলিস্তিন সংকট সমাধান না হওয়া পর্যন্ত আমরা এই পথে হাঁটবো না’।

ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ক থাকার কারণে তিনি ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেয়ার জন্য কোন দেশগুলো চাপ দিচ্ছে সেসব দেশ সম্পর্কে কিছু জানাননি ইমরান। প্রধানমন্ত্রী ইমরান বলেন, ‘এসব দেশের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ হোক এমনটা আমরা চাই না।’

ফিলিস্তিনিদের দাবি আদায়ে ইমরান খান সব সময়ই সোচ্চার। প্রায় সময় তাদের পক্ষে কথা বলতে দেখা যায় তাকে। সম্প্রতি তিনি বলেন, ‘পাকিস্তান কখনও ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেবে না।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here