১০ বছরের কা’রাদ’ণ্ডে দ’ণ্ডিত বিএনপি নেতা মীর মোহাম্ম’দ নাসির উদ্দিনকে অ’বৈধ সম্পদ অর্জনের একটি মা’মলায় কা’রাগারে পাঠিয়েছেন আ’দালত। রোববার (৮ নভেম্বর) ঢাকার ২ নম্বর বিশেষ জজ আ’দালতের বিচারক এএমএম রুহুল ইমরানের আ’দালতে আইনজীবীর মাধ্যমে আত্মসমর্পণ করে জা’মিন আবেদন করেন মীর নাসির। শুনানি শেষে আ’দালত জা’মিন নামঞ্জুর করে তাকে কা’রাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। আ’দালত সূত্রে এ ত’থ্য জানা গেছে।

গত ২৭ অক্টোবর একই আ’দালতে আইনজীবীর মাধ্যমে আত্মসমর্পণ করে জা’মিন আবেদন করেন মীর মোহাম্ম’দ নাসির। শুনানি শেষে আ’দালত জা’মিন নামঞ্জুর করে তাকে কা’রাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। মা’মলার নথি থেকে জানা যায়, ২০০৭ সালের ৬ মার্চ অ’বৈধ সম্পদ অর্জন এবং সম্পদের ত’থ্য গো’পনের অ’ভিযোগে মীর নাসির ও তার ছেলে মীর হেলালের বি’রুদ্ধে গুলশান থানায় মা’মলা দা’য়ের করে দু’র্নীতি দ’মন কমিশন (দুদক)।

মা’মলায় বিচার শেষে একই বছরের ৪ জুলাই ঢাকার ২ নম্বর বিশেষ জজ মীর নাসির উদ্দিনকে ১০ বছরের দ’ণ্ড দেন। একইস’ঙ্গে ৫০ লাখ টাকা অর্থদ’ণ্ড, অনাদায়ে দুই বছরের কা’রাদ’ণ্ড দেন। আর তার ছেলে মীর হেলালকে তিন বছরের কা’রাদ’ণ্ড এবং এক লাখ টাকার অর্থদ’ণ্ড দেন। অর্থদ’ণ্ড অনাদায়ে তার আরও এক মাসের দ’ণ্ড দেন। ওই রায়ের বি’রুদ্ধে পিতা ও পুত্র হাইকোর্টে পৃথক আপিল করেন।

হাইকোর্ট ২০১০ সালের ১০ আগস্ট মীর নাসিরের এবং একই বছরের ২ আগস্ট মীর হেলালের সাজা বাতিল করে রায় দেন। হাইকোর্টের ওই রায় বাতিল চেয়ে আপিল আবেদন করে দুদক। ২০১৪ সালের ৪ জুলাই আপিল বিভাগ হাইকোর্টের রায় বাতিল করে হাইকোর্টকে পুনরায় আপিল শুনানির নির্দেশ দেন। পুনরায় আপিল শুনানি শেষে ২০১৯ সালের ১৯ নভেম্বর হাইকোর্ট বিচারিক আ’দালতের রায় বহাল রেখে রায় দেন। একইস’ঙ্গে রায় দেওয়া বিচারিক আ’দালতে রায় পৌঁছানোর তিন মাসের মধ্যে আ’সামিদের আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here