পাবনার সুজানগরে রুমা খাতুন (৩২) নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। এ সময় তার দুই সন্তানকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল শনিবার (৩১ অক্টোবর) রাতে সুজানগর উপজেলার ভায়না ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

তবে পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে– পারিবারিক কলহের জের ধরে ওই গৃহবধূ নিজে বিষ খাওয়ার পর তার সন্তানদেরও ভাতের সঙ্গে বিষ খাওয়ান। মৃত গৃহবধূ রুমা ওই গ্রামের মো. বাচ্চু মণ্ডলের স্ত্রী। এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্র জানায়, পারিবারিক কলহের জের ধরে গৃহবধূ নিজে ভাতের মধ্যে বিষাক্ত ট্যাবলেট খায় এবং তার ১০ বছর ও ১৩ বছরের দুই শিশুপুত্রকে বিষাক্ত ট্যাবলেট ভাতের মধ্যে মিশিয়ে খাওয়ায়।

রাত ৯টার দিকে রুমা ও তার দুই সন্তানকে উদ্ধার করে প্রথমে সুজানগর হাসপাতালে নেয়া হয়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক ওই গৃহবধূকে মৃত ঘোষণা করেন। এ সময় দুই সন্তানের অবস্থার অবনতি হলে তাদের পাবনা জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। পরে পাবনা জেনারেল হাসপাতাল থেকে রাতেই দুই শিশুকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

সুজানগর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ফরহাদ হোসেন বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি– পারিবারিক কলহের জের ধরে গৃহবধূ বিষপান করার পর দুই সন্তানকেও বিষপান করাতে পারেন। হাসপাতালের বরাত দিয়ে তিনি জানান, শনিবার রাতে হাসপাতালে নিয়ে আসার পর দুই শিশু বমি করে এবং বমির সঙ্গে এক ধরনের ট্যাবলেট বের হয়। তবে সুষ্ঠু তদন্তের ভিত্তিতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এদিকে ওই গ্রামের একাধিক সূত্র জানায়, বাচ্চু মণ্ডলের সঙ্গে তার ভাইদের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে পারিবারিক বিরোধ চলে আসছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here