ভালোবাসার ব’ন্ধ’নে আ’বদ্ধ হওয়ার অনুভূতি অনেক বেশি সুন্দর। এই অনুভূতির সাথে অন্য কিছুর তুলনা হয় না।

প্রথম প্রথম প্রেমের অসাধারণ অনুভূতির রেশ কিন্তু খুব বেশীদিন থাকে না। কিছু দিনের মধ্যেই একে অপরের বিশেষ কিছু আ’চরণ প্রকাশের মাধ্যমে বুঝতে পারেন প্রেম জিনিসটি খুব বেশি সু’খকর নয়।

এ ধরনের জ্বা’লাময়ী অনুভূতি না পেতে চাইলে আগেই প্রে’মিকার কিছু বি’ষয়ের উপর নজর দিন। কারণ আ’পাত দৃষ্টিতে প্রে’মিকার এইসকল বি’ষয় গু’ণ বলে মনে হলেও পরবর্তীতে আপনার জীবনটা নরকে পরিণত হতে বেশীদিন লাগবে না। এবং কিছু ধরনের না’রী হতে দূরে থাকুন।

কারণ এই ১০ ধরনের না’রী প্রে’মিকা হয়ে গেলে আপনার জীবন হবে ন’রকের সমতুল্য। যে ১০ ধরনের প্রে’মিকা আপনার জীবনকে বানিয়ে দিতে পারেন ন’রক! ১) আঠা ধরনের প্রে’মিকা: প্রথম প্রথম ‘তোমাকে ছাড়া কিছু করতে পারি না, তোমার সাথে সারাক্ষণ থাকতে ইচ্ছে করে’ জাতীয় কথা অনেক বেশি ম’ধুর শোনালেও যখন সত্যিই সারাটা সময় আপনার সাথে আঠার মতো লেগে থাকতে চাইবেন আপনার প্রে’মিকা, তখন কিন্তু ঝা’মেলা আপনারই হবে।

২) অতিরিক্ত নি’য়ন্ত্রণ করতে চাওয়া প্রে’মিকা: ওই মে’য়ের সাথে কথা বলবে না, আমাকে ছাড়া সেখানে যাবে না ইত্যাদি আদুরে আবদার যদি আপনার প্রে’মিকার মধ্যে থাকে তাহলে স’মস্যায় পরতে বেশি দেরি নেই আপনার। কারণ এই ছোট বি’ষয়গুলো দিয়েই আপনাকে নি’য়ন্ত্রণে আনার চেষ্টায় রয়েছেন তিনি। ৩) আপনার কাছ থেকে সুবিধা নেয়া প্রে’মিকা: সব সময় তার সব কাজে আপনাকে ডা’কাতে কি আপনি ভাবছেন তিনি আপনাকে অনেক আপন ভাবেন? তাহলে জেনে রাখু’ন তিনি হচ্ছেন সুবিধা নেয়া প্রে’মিকা।

তিনি আপনার সাথে আছেন কারণ তিনি আপনাকে ব্যবহার করতে পারছেন। ৪) নিজের ভু’ল স্বীকার করতে না চাওয়া প্রে’মিকা: যিনি নিজের ভু’ল স্বীকার করতে চান না তাকে নিয়ে কখনো সম্প’র্ক টি’কিয়ে রাখতে পারবেন না। কারণ একজন মানুষ ভু’ল করা তখনই শো’ধরাতে পারেন যখন তা মেনে নিয়ে নিজেকে শোধরাতে চেষ্টা করেন। এইধরনের প্রে’মিকার সাথে জীবন নরকের মতোই। ৫) সবসময় অ’ভিযোগ করা প্রে’মিকা: সবকিছুতেই তার স’মস্যা ও অ’ভিযোগ। আপনার সবকাজ নিয়েই তার অ’ভিযোগের সীমা নেই।

এইধরনের প্রে’মিকাকে কখনোই খুশি রাখতে পারবেন না, তখন জী’বনটাকে নরকই মনে হতে থাকবে। ৬) দ্বি’ধাগ্রস্থ প্রে’মিকা: সব ব্যাপারই আপনার প্রে’মিকার দ্বি’ধা। তিনি নিজেও জানেন না তিনি কি চান। আবার সেটা না পেলে নিজে নিজেই অ’ভিমান করে বসে থাকেন। এইধরনের প্রে’মিকার মনের কথা উ’দ্ধার করতে করতেই জীবনের বা’রোটা বেজে যাবে। ৭) সবকিছু চাই ধরনের প্রে’মিকা: তার কাছে দুনিয়ার সবকিছুই অনেক কম মূ’ল্যের। আপনি যদি চাঁ’দটাও এনে দেন তাহলে সূ’র্যের জন্য আবদার করে বসে থাকবেন।

সুতরাং এই ধরণের প্রে’মিকা থেকে সাবধান। ৮) নিজের সি’দ্ধান্তে অটল থাকা প্রে’মিকা: সি’দ্ধান্ত জানানো ভালো, এতে করে বোঝা যায় তিনি আ’ত্মনির্ভরশীল। কিন্তু স’মস্যা হলো সেই সি’দ্ধান্ত নিয়ে গোঁ ধরে বসে থাকা। সি’দ্ধান্ত তখনই নেয়া ভালো যেখানে অপরপক্ষের মতামত থাকে। নিজ সি’দ্ধান্ত নিয়ে তাতে অ’টল হয়ে বসে থাকা প্রে’মিকা জীবনটাকে ন’রক বানাতে পারেন। ৯) কোনো সি’দ্ধান্ত নিতে না চাওয়া মিষ্টি প্রে’মিকা: সব কিছুই আপনি করে দেন, সব সি’দ্ধান্তই আপনার উপরে মিষ্টি হে’সে ছেড়ে দেন। ভাবছেন বাহ!

পা’রফেক্ট প্রে’মিকা। আসলে তিনি আপনাকে সি’দ্ধান্ত নিতে দিয়ে দেখেন আপনি তার মতামতের সাথে মেলেন কিনা। যদি না মি’লিয়ে চলতে পারেন তাহলে অ’ভিমান করে অন্য দিক দিয়ে ঠিকই আপনাকে খে’সারত দেয়াবেন। ১০) ঘোরানো ধরনের প্রে’মিকা: তিনি আপনার সাথে সম্প’র্কে আছে কি নেই তা আপনি সঠিক বুঝতে পারবেন না। একধরণের মো’হ কাজ করে যিনি আপনার সাথে অনেক বেশি র’হস্য করেন, কিন্তু আপনার এই ঝুলে থাক্যা জীবন কিন্তু নরকের মতোই হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here