আবারও বড় ধরনের দরপতন হয়েছে সোনার বাজারে। পূজার আগে বড় এই দরপতনে চওড়া হাসি মধ্যবিত্তের মুখে সাথে সোনার দোকানে ভীড় বাড়তেও শুরু করেছে। চলতি মাসে বেশ কয়েক দফা সোনার দরপতন হয়েছে। গত মাসে কিছুটা বাড়তির দিকে থাকলেও সেই ধারা ভে’ঙে কমতে শুরু করেছে সোনার দর।

কলকাতার বাজারে লাফিয়ে কমতে দেখা গিয়েছে সোনার দর। ২৪ ক্যারেটের ১ গ্রাম সোনার মূ’ল্য কমে দাড়িয়েছে ৫ হাজার ১৩০ টাকা। যা আগের তুলনায় হ্রাস পেয়েছে ১৪৭ টাকা। ৮ গ্রামে এই দাম কমে গিয়ে দাড়িয়েছে ৪১ হাজার ৪০ টাকা। সবশেষ খবর অনুযায়ী কলকাতার বাজারে প্রতি ১০ গ্রাম সোনার মূ’ল্য রয়েছে ৫১ হাজার ৩০০ টাকা। যা আগের চেয়ে কমেছে ১ হাজার ৪৭০ টাকা। এই মূ’ল্যে ১০০ গ্রাম সোনারদরপতন হয়েছে ১৪ হাজার ৭০০ টাকা।

২৪ ক্যারেটের সোনার মূ’ল্যের এমন দরপতনের দিন অবশ্য বেড়েছে ২২ ক্যারেটের সোনার মূ’ল্য। আগের চেয়ে বেশ খানিকটা চড়া হতে দেখা গেছে এই ধাতবের দাম। ২২ ক্যারেটের ১০ গ্রাম সোনার মূ’ল্য এদিন বেড়েছে ৫০ টাকা।

উল্লেখ্য, গত বুধবার (১৪ অক্টোবর) লাগাতার কমতির দিকে ছিল দিল্লির বাজারে সোনার দর। এদিন দিল্লির বাজারে সোনার দাম কমতে দেখা গিয়েছে ৬৩১ টাকা পর্যন্ত। ফলে প্রতি ১০ গ্রাম সোনার মূ’ল্য গিয়ে ঠেকেছে ৫১ হাজার ৩৬৭ টাকায়। এমন দরপতনের কারন হিসেবে বিশেষজ্ঞদের ধারনা ডলারের বিপরীতে টাকার মূ’ল্য বৃ’দ্ধি পাবার কারনেই দরপতন হয়েছে।

শুধু সোনাই নয় কমতির দিকে ছিল রুপার দামও। একই দিনে রুপার দাম কমেছে ১ হাজার ৬৮১ টাকা। ফলে প্রতি কেজি রুপার মূ’ল্য গিয়ে ঠেকেছে ৬২ হাজার ১৫৮ টাকায়।এছাড়া গত ৭ অক্টোবর সারাদিনই সোনার এই দরপতন লক্ষ্য করা গিয়েছিল। ফলে কলকাতার বাজারে এদিন ২২ ক্যারেটের এক গ্রাম সোনা বিক্রি হয়েছিল ৪ হাজার ৯৪৭ টাকায়। ১০ গ্রামের মূ’ল্য দাড়িয়েছে ৪৯ হাজার ৪৭০ টাকা। আগের দিনের থেকে ১০ গ্রাম সোনার মূ’ল্য কমেছিল ৪৫০ টাকা।

দিল্লির বাজারে একই দিন সোনার দরপতন হয়েছে আরও বেশি। কলকাতার তুলনায় অবশ্য সবসময়ই মূ’ল্য কম থাকে দিল্লির বাজারে। ২২ ক্যারেটের ১০ গ্রাম সোনা এদিন দিল্লিতে বিক্রি হয়েছে ৪৮ হাজার ৯০০ টাকায়। আগের দিনের চেয়ে এদিন দাম কমেছে প্রায় ৫০০ টাকা।এদিকে শহরে শনিবার (১৭ অক্টোবর) সোনার দাম কমে গিয়েছে ১৭ হাজার টাকা। এমন দুর্দান্ত দরপতনের পর সোনার চা’হিদা বেড়ে যাবে বেশ এমনিটাই ধারনা করা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here