হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে স্বামী-স’ন্তান ছেড়ে প্রেমিকের হাত ধরে পা’লিয়ে যান জোনাকী (২১) নামের এক গৃ’হবধূ। এক মাস পর শনিবার সন্ধ্যায় হবিগঞ্জ-বানিয়াচং সড়কের পাশে তার লা’শ ফে’লে পা’লিয়ে যাওয়ার সময় ঘা’তক প্রেমিককে আ’টক করেছেন জনতা। খবর পেয়ে লা’শ উ’দ্ধারসহ আ’টক অনিককে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। নি’হত জোনাকী উপজে’লা সদরের রঘু চৌধুরীপাড়া গ্রামের আবু মিয়ার মেয়ে ও কুতুবখানী গ্রামের অপু মিয়ার স্ত্রী।

নি’হত জোনাকীর তন্নী নামে আড়াই বছর বয়সী এক মেয়ে ও বায়েজীদ নামে ৬ বছর বয়সী এক ছেলে রয়েছে। আ’টক ঘা’তক প্রেমিকের নাম অনিক পান্ডে (৩১)। তিনি একই উপজে’লার কাষ্টগড় গ্রামের মৃ’ত মৃণাল ওরফে মানিক পান্ডের ছেলে।

নি’হতের মা হেনা বেগম জানান, প্রায় দেড় মাস পূর্বে স্বামী ও পুত্রস’ন্তান রেখে কন্যাস’ন্তানসহ জোনাকী প্রেমিক অনিক পান্ডের হাত ধরে পা’লিয়ে যায়। শনিবার বিকালে হেনা বেগমকে অনিক ফোন করে জানায়, তার মেয়ে জোনাকী সিলিং ফ্যানের আ’ঘাতে মা’রা গেছে। সে অ্যাম্বুলেন্সে করে লা’শ পাঠাচ্ছে। এর কিছুক্ষণের মধ্যে হবিগঞ্জ-বানিয়াচং সড়কে চলাচলকারী পথচারীরা দেখেন একটি ছোট মেয়ের পাশে একজন নারীর লা’শ পড়ে রয়েছে।

অ’ভিযুক্ত অনিক পান্ডে রাস্তার পার্শ্ববর্তী খাল পেরিয়ে পা’লিয়ে যাওয়ার সময় এলাকাবাসী তাকে আ’টক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করেন।

নি’হতের মা বলেন, সে আমার মেয়ের ও তার স’ন্তানদের জীবন ন’ষ্ট করেছে। আমি আমার মেয়ে হ’ত্যার বিচার চাই।

বানিয়াচং থানার ওসি মো. এমরান হোসেন বলেন, লা’শ উ’দ্ধার করা হয়েছে। লা’শের ম’য়নাত’দন্ত করা হবে। অ’ভিযুক্ত আ’টক অনিককে জি’জ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here