নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজে’লার একলা’শপুর ইউনিয়নে অ’নৈতিক কাজের অ’পবাদ দিয়ে এক না’রীকে (৩৬) বি’বস্ত্র ক’রে মধ্যযুগীয় কা’য়দায় নি’র্যাতন ক’রেছে একদল যুবক। নি’র্যাতনকা’রীদের বারবার বাবা ডেকেও শে’ষ র’ক্ষা হয়নি ওই না’রীর।

রোববার (০৪ অক্টোবর) দুপুর থেকে নি’র্যাতনের এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ভাইরাল হলে দেশ জুড়ে তোলপাড় সৃ’ষ্টি হয়। এরপরই অ’ভিযান নামে প্রশা’সন। ঘ’টনায় জ’ড়িত থাকা স’ন্দে’হে পু’লিশ অ’ভিযান চা’লিয়ে আব্দুর রহিম (২৪) নামে এক যুবককে আ’টক ক’রেছে।

আব্দুর রহিম জয়কৃ’ষ্ণপুর গ্রামের শেখ আহম্ম’দ দুলালের ছেলে। তিনি স্থানীয় দেলোয়ার বা’হিনীর প্রধান দেলোয়ারের

সেকেন্ড ইন কমান্ড বলে জানিয়েছে পু’লিশ। এদিকে নি’র্যাতনকা’রী স’ন্ত্রাসীদের ভ’য়ে তালা দিয়ে বাড়ি ছেড়ে পা’লিয়ে গেছে নি’র্যাতিতা ও তার পরিবারের লোকজন।

তার স্বজনদের কাছ থেকেও কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। জানা গেছে, গত তিন বছর আগে ওই না’রীর বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিনের মধ্যে তার স্বা’মী আরো একটি বিয়ে করলে তাদের মধ্যে যোগাযোগ ব’ন্ধ হয়ে যায়। গত ২ সেপ্টেম্বর রাতে ওই না’রীর আগের স্বা’মী তার সাথে দেখা করতে তার ঘরে ঢোকেন।

বি’ষয়টি দেখে পেলে স্থানীয় মা’দক ব্যবসায়ী ও দেলোয়ার বা’হিনীর প্রধান দেলোয়ার। রাত ১০টার দিকে দেলোয়ার তার লোকজন নিয়ে ওই না’রীর ঘরে প্রবেশ ক’রে। পরে অ’নৈতিক কাজের অ’ভিযোগ এনে ওই না’রীকে মা’রধ’র শুরু ক’রেন। এক পর্যায়ে পি’টিয়ে না’রীকে বি’বস্ত্র ক’রে ভিডিও ধারণ ক’রে।

ভিডিওটিতে দেখা যায়, ওই গৃ’হবধূকে বি’বস্ত্র ক’রে তাকে মা’রধ’র ক’রে অ’ভিযুক্তরা। এসময় গৃ’হবধূ চিৎ’কার করলেও

ব’ন্ধ হয়নি নি’র্যাতন। ভিডিও চিত্র দেখা একাধিক ব্যক্তি বলেন, স্থানীয় দেলোয়ার বা’হিনীর প্রধান দেলোয়ার ও তার সেকেন্ড ইন কমান্ড বাদল, কালাম, সাইফুদ্দিন, রহিম ও সুমন সহ ৬-৭ ওই না’রীর ও’পর এ নি’র্যাতন চা’লিয়েছে।

নি’র্যাতনকারী দেলোয়ার ও তার বা’হিনীর লোকজনের গ্রে’ফতারের দা’বি জানিয়েছেন স্থানীয় এলাকাবাসী। বেগমগঞ্জ মডেল থা’নার ভারপ্রা’প্ত কর্মক’র্তা (ওসি) হারুনুর রশিদ বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিও দেখে পু’লিশ

উর্ধ্বতন ক’র্তৃপক্ষের নি’র্দেশে সন্ধ্যায় অ’ভিযান চা’লিয়ে আব্দুর রহিম নামের নি’র্যাতনকারী দলের এক সদস্যকে আ’টক করা হয়েছে।

পু’লিশের প্রাথমিক জি’জ্ঞাসাবাদে আবদুর রহিম ঘ’টনার স’ঙ্গে জ’ড়িত থাকার কথা স্বীকার ক’রেছে। নোয়াখালী পু’লিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন বলেন, ঘ’টনার স’ঙ্গে জ’ড়িতদের মধ্যে একজনকে আ’টক করা হয়েছে। বাকিদের আ’টকের চে’ষ্টা চলছে। এ নে’ক্কারজনক ঘ’টনার স’ঙ্গে জ’ড়িতরা যতই ক্ষ’মতাধর হোক না কেন তাদেরকে আ’ইনের আওতায় এনে দৃ’ষ্টান্তমূ’লক শা’স্তি দেয়া হবে।

পু’লিশ সুপার জানান, পু’লিশ আজ নি’র্যাতিতাকে তার বাবার বাড়ি থেকে উ’দ্ধার ক’রেছে। সে পু’লিশকে জানায়, আজ থেকে ২০/২৫ দিন আগে এই ভিডিও চিত্র ধারণ করা হয়। তবে সঠিক তারিখ সে বলতে পারেনি। এ ছাড়া ভিডিওতে দৃশ্যমান ব’খাটেদের গ্রে’প্তারের জন্য পু’লিশের ৫টি ইউনিট অ’ভিযান চা’লিয়ে যাচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here