শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা ও এইচএসসি পরীক্ষার বি’ষয়ে ম’ন্ত্রণালয়ই সি’দ্ধান্ত নিতে পারবে। এরপরও এ বি’ষয়ে মন্ত্রিসভা বা প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ চাইলে তা জানানো হবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ স’চিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) মন্ত্রিসভা বৈঠকের ব্রিফিংয়ে এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ স’চিব এ কথা জানান।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল মন্ত্রিসভা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী এবং স’চিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে মন্ত্রীরা এ বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার বি’ষয়ে কোনো সি’দ্ধান্ত হয়েছে কিনা- জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ স’চিব বলেন, আমরা বলে দিয়েছি, যেকোনো সেক্টরে রেসপেক্টিভ মিনিস্ট্রিকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে, যারা কর্তৃপক্ষ তারা তাদের নিজ বিবেচনায় ব্যবস্থা নেবেন।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা এবং এইচএসসি পরীক্ষার বি’ষয়ে ম’ন্ত্রণালয় বলছে স’রকারের উচ্চ পর্যায় থেকে সি’দ্ধান্ত না আসলে তারা সি’দ্ধান্ত জানাবেন না- এ বি’ষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করে মন্ত্রিপরিষদ স’চিব বলেন, একদম প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন করার পর আমরা কনভে করে দিয়েছি, এরপরও তারা যদি মনে করে যে সাজেশন দরকার বা কোনো রুলিং দরকার কেবিনেটের বা প্রধানমন্ত্রীর,

আমাদেরকে যদি রেফার করে তাহলে সেটা ওভাবেই বিবেচনা করা হবে। কিন্তু এখন অথরিটি তাদের কাছেই দিয়ে দেয়া আছে।

প্রস’ঙ্গত, দেশে ক’রোনাভা’ইরাসেের প্রাদুর্ভাব দেখা দিলে গত ১৭ মার্চ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে স’রকার। এরপর বেশ কয়েক ধাপে এ ছুটির মেয়াদ বাড়ানো হয়। সবশেষ ঘোষণা অনুযায়ী আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত ছুটির মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here