অনস্ক্রিনে বহুবার ডিপজল-রেসির রোমান্স দেখেছেন দর্শক। অফস্ক্রিনেও এই অভিনয়শিল্পীদের প্রেম ছিল বলে একসময় গুঞ্জন ভাসত ঢালিউডের বাতাসে। কিন্তু সত্যিই কি দুজনের ঘনিষ্ঠ সম্প’র্ক ছিল?

শুটিংয়ের প্রয়োজনে নায়িকা রেসি ডিপজলের শুটিংবাড়িতে কাটিয়েছেন বছরের পর বছর। ‘এক জবান’, ‘বাজারের কুলি’র মতো বেশ কিছু ব্যবসাসফল সিনেমায় অভিনয় করেছেন এ জুটি। মোট ১৩টি সিনেমায় জুটি বেঁ’ধেছেন তাঁরা।

সে সময় রেসি ছাড়া ডিপজলকে বড়পর্দায় দেখাই যায়নি। পর্দার বাইরেও তাই গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছিল। শোনা যেত, তাঁরা নাকি চুটিয়ে প্রেম করছেন। সে বি’ষয়ে এবার মুখ খুললেন চিত্রনায়িকা মৃদুলা আহমেদ রেসি।

সম্প্রতি এনটিভি অনলাইনের স’ঙ্গে কথা হয় নায়িকা রেসির। সিনেমা ছাড়াও ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে খোলামেলা কথা বলেন একসময়ের সাড়া জাগানো এ সুন্দরী।

রেসির দাবি, একস’ঙ্গে অনেকগুলো সিনেমা করায় মনোয়ার হোসেন ডিপজলের স’ঙ্গে ভালো বন্ধুত্ব হয়ে গিয়েছিল তাঁর। সে বন্ধুত্ব আজও অটুট। এসব দেখেশুনে এফডিসির অলিগলিতে সে সময় রটেছিল নানা চটকদার গুঞ্জন। তবে বিনোদনপাড়ার গুঞ্জন নিয়ে খুব একটা মাথা ঘামান না রেসি। নজর রাখেন বাইরের দেশগুলোতে রটা গুঞ্জনের খবরও। তাই এসব হেসেই উড়িয়ে দেন তিনি।

রেসি বলেন, ভালোবাসার তো রকমফের হয়। এই ভালোবাসা ওই অর্থে প্রেম নয়। বাবা-মা, ভাইবোনের যেমন ভালোবাসা থাকে, তেমনি সহশিল্পীর মতো ভালোবাসা ছিল ডিপজলের স’ঙ্গে। নায়িকার ভাষায়, ‘আমাদের যে সম্প’র্ক, সেটা আমাদের দুই পরিবারের সবাই জানে। আমাদের মধ্যে পারিবারিক সম্প’র্ক রয়েছে।’

তবে ডিপজলের স’ঙ্গে প্রেমের রটনায় একটুও বির’ক্ত বা মনোক্ষুণ্ণ নন ‘অন্তরে প্রেমের আ’গুন’ অভিনেত্রী রেসি। তাঁর ‘এক জবান’, ‘এগুলো আমরা এনজয় (উপভোগ) করি।’

রেসিকে ‘ডিপজলের নায়িকা’ হিসেবে আখ্যা দেন তাঁদের ভক্তরা। এ প্রস’ঙ্গ উঠলে তিনি বলেন, একমাত্র নায়ক রিয়াজ ছাড়া আর সব হিরোর স’ঙ্গেই জুটি বেঁ’ধেছেন। কিন্তু লোকে যে কেন তাঁকে ‘ডিপজলের নায়িকা’ বলেন, তা তাঁর বোধগম্য নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here