মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে দেশে কয়েকদিন ধরে মিশ্র আবহাওয়া বিরাজ করছে। যার ফলে বৃষ্টি হচ্ছে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে। আগামী কয়েকদিন ভারী বৃষ্টিপাতের আশংকা আছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দেশের তিন বিভাগে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) থেকে আগামী সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত ভারী বৃষ্টি হতে পারে। তবে দু’দিন পর থেকে বৃষ্টির আ’শঙ্কা কমতে থাকবে এবং পরবর্তী ৩ দিন আবহাওয়ার অবস্থার খুব বেশি পরিবর্তন হবে না।

আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক শামসুদ্দিন আহমেদ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘রংপুর, রাজশাহী ও সিলেট বিভাগে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে। ঢাকাসহ অন্যান্য বিভাগেও বৃষ্টি হবে। সেই স’ঙ্গে দমকা হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এছাড়া, আকাশ মেঘলা থাকায় দিন ও রাতের তাপমাত্রা কমতে পারে। ফলে হালকা শীত শীত অনুভূত হতে পারে।’

শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দেশের উপকূলীয় জে’লাগুলোতে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হয়েছে। সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে। সেখানে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৬৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া, কুড়িগ্রাম ও নীলফামারীতে ১০০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

ওমরাহ শেষ করতে হবে মাত্র ৩ ঘন্টায়!

মু’সলমানদের পবিত্র ওমরাহ পালনের জন্য মাত্র তিন ঘণ্টা সময় বেঁ’ধে দিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। ম’হামা’রি ক’রোনার কারণে বেশ কিছু দিন বন্ধ থাকার পর সীমিত পরিসরে আবারো খুলে দেয়ার সি’দ্ধান্ত নেয় সৌদি আরব। তবে ক’রোনা পরিস্থিতি এখনো স্বাভাবিক না হওয়ায় আগের মত অবাধ বিচরণের সুযোগ আর থাকছ না।

জানা গেছে, আগামী ৪ অক্টোবর থেকে আ’গ্রহী মুসল্লিরা ওমরাহ পালন করতে পারবেন। তবে শুরুতে তিন ধাপে পর্যায়ক্রমে মুসল্লিদের এ সুযোগ দেয়া হবে। প্রথম ধাপে কেবল সৌদিতে অবস্থানরত ব্যক্তিই এ সুযোগ পাবেন। বিশেষ একটি অ্যাপের সাহায্যে ওমরাহ আদা’য়ের পুরো কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করা হবে।

প্রথম স্তরে প্রতিদিন ছয় হাজার লোক ছয় ধাপে ভিন্ন ভিন্ন সময়ে ওমরাহ আদায় করতে পারবেন। প্রতি এক হাজার লোক ওমরাহ আদা’য়ের জন্য তিন ঘণ্টা সময় পাবেন। প্রথম স্তরে শুধু সৌদিতে অবস্থানরত ব্যক্তিরা ওমরায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন। সাধারণ ধারণক্ষ’মতার ৩০ ভাগ তথা ছয় হাজার লোক প্রতিদিন ওমরাহ আদা’য়ের সুযোগ পাবেন।

আগামী ১৮ অক্টোবর থেকে শুরু হবে দ্বিতীয় স্তরে ওমরাহ পালন। ধারণ ক্ষ’মতার ৭৫ ভাগ তথা ১৫ হাজার লোক ওমরাহ ও ৪০ হাজার লোক নামাজ আদায়ে অংশ নিতে পারবেন। এরপর এক নভেম্বর থেকে তৃতীয় স্তরে ২০ হাজার লোক ওমরাহ ও ৬০ হাজার লোক নামাজ আদায়ে অংশ নিতে পারবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here