বন্ধ্যাত্বের অনেক কারণ আছে। ব’য়স বাড়ার সাথে সাথে না’রীর স’ন্তান ধারণ ক্ষ’মতা অনেকটাই কমে আসে। আর কি কি কারণে এমনটা হতে পারে, জেনে নিন বিস্তারিত- ১.অতিরিক্ত ওজন: অতিরিক্ত ওজন স’ন্তান না হওয়ার একটি অন্যতম প্রধান কারণ। এটি শ’রীরের হরমোনের মাত্রাকে প্রভাবিত

করে এবং না’রীর স’ন্তান ধারণ ক্ষ’মতাকে অত্যন্ত জটিল করে তোলে। এর ফলে না’রীর জরায়ুর কার্যক্ষ’মতাও হ্রাস পায়। ২. রুগ্ন শ’রীর: অতিরিক্ত ওজন যেমন স’ন্তান ধারণের ক্ষেত্রে স’মস্যা সৃষ্টি করে তেননই খুব কম ওজনও একই স’মস্যা সৃষ্টি করে। বেশি রো’গা হলে না’রীর দে’হে ল্যাপটিন

হরমোনের অভাব হয়। এই হরমোন ক্ষুধাকে নি’য়ন্ত্রণ করে। শ’রীরে এই হরমোনের ঘাটতি হলে ঋতুচ’ক্রের স’মস্যা হয়। তাই গবেষকদের মতে, উচ্চতা এবং ওজনের সামঞ্জস্য বজায় রাখু’ন। ৩. ব’য়স বেশি হওয়া: যখন না’রীদের ব’য়স বেশি হয়ে যায় তারা আর স’ন্তান ধারণ করতে পারেনা। ব’য়স

বেশি হলে ঋতুচ’ক্র বন্ধ হয়ে যায়। ঋতুচ’ক্র একবারে বন্ধ হয়ে যাওয়াকে মেনোপজ বলে। মেনোপজ হয় সাধারণত ৪৫ থেকে ৫০ বছর ব’য়সের মধ্যে। তাই অধিকাংশ চিকিত্‍সকের মতে, ৩৫ বছরের আগে স’ন্তান নেওয়া উচিত। এর পরে স’ন্তান ধারণ কঠিন হয়ে পড়ে। ৪. মা’নসিক চা’প:

চিকিত্‍সকরা বলছেন, যেসব না’রী দীর্ঘদিন ধরে মা’নসিক চা’প বা দুশ্চিন্তার মধ্যে থাকেন, তাঁদের স’ন্তান ধারণ ক্ষ’মতা অনেক কমে যায়। কারণ, মা’নসিক চা’প শ’রীরের বিভিন্ন পরিবর্তন ঘটায়। আর এই মা’নসিক পরিবর্তন ঘটলেই স’ন্তান ধারণ ক্ষ’মতা কমে যায়। ৫. ম’দ্যপান: ২০০৪ সালে

সুইডিশ বিজ্ঞানীরা ১৮ বছর ধরে ম’দ্যপান করেন-এমন সাত হাজার না’রীর ও’পর সমীক্ষা চা’লিয়ে দেখেন, তাঁদের স’ন্তান ধারণক্ষ’মতা অনেক কমে গেছে। তাই গবেষকদের মতে, আপনি যদি স’ন্তান নিতে চান, তবে অবশ্যই ম’দ্যপান থেকে বিরত থাকুন। ৬. থাইরয়েড স’মস্যা: থাইরয়েডের

স’মস্যা গ’র্ভধারণকে ব্যাহত করে। থাইরয়েড থেকে অনেক হরমোন নিঃসৃত হয়। তাই থাইরয়েড জনিত কোনো স’মস্যা হলেও স’ন্তান ধারণ ক্ষ’মতা কমে যেতে পারে। ৭. অতিরিক্ত ক্যাফেইন খাওয়া: যারা অতিরিক্ত ক্যাফেইন জাতীয় জিনিস খায়, তাদের গ’র্ভধারণে স’মস্যা হয়। যারা দিনে পাঁচ

কাপের বেশি কফি পান করেন, তাঁদের এ স’মস্যা হয়। তাই স’ন্তান নিতে চাইলে কফিপান কমিয়ে দেওয়ার পক্ষেই মতামত গবেষকদের। ৮. স্বা’স্থ্যগত স’মস্যা: বিভিন্ন স্বা’স্থ্যগত স’মস্যা যেমন, পলিসাইটিক ওভারি সিনড্রোম, সিস্ট, এনডোমিটট্রিওসিস-এসব বি’ষয় অনেক সময় না’রীর বন্ধ্যত্বের জন্য

দায়ী। রিউমাটোয়েড আর্থ্রাইটিসও অনেক সময় এর কারণ হয়। তাই এসব স’মস্যা হলে আগে থেকে চিকিত্‍সা করাতে হবে, নয়তো স’ন্তান ধারণ করতে স’মস্যা হতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here