মাদারীপুরে দীর্ঘদিন ফেসবুকে পরিচয়ে ইতালী প্রবাসীর সাথে প্রেম এবং বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে আবাসিক হোটেলে ধ’র্ষণের শি’কার হয়ে আত্মহ’ত্যা চেষ্টা করেছে এক শিক্ষার্থী। রবিবার (৩০ আগস্ট) দুপুরে মাদারীপুর শহরের ভূঁইয়া ইন আবাসিক হোটেলে এ ঘ’টনা ঘটে। এ ঘ’টনায় জ’ড়িত থাকার অ’ভিযোগে রাতেই হোটেল ম্যানেজারসহ সহযোগী ৪ জনকে আ’টক করেছে মাদারীপুর সদর মডেল থানা পু’লিশ।

অ’ভিযুক্ত বায়েজিদ মাতুব্বর শিবচর উপজে’লা নিলখী গ্রামের আক্কাস মাতুব্বরের ছেলে এবং ধ’র্ষণের শি’কার শিক্ষার্থীর বাড়ি মাদারীপুর সদর উপজে’লার শিরখারা ইউনিয়নের শ্রীনদী গ্রামে। বর্তমানে সে অ’সুস্থ অবস্থায় মাদারীপুর সদর হাসপাতালে চিৎকিসাধীন রয়েছে।

স্থানীয় ও পু’লিশ সূত্রে জানা যায়, ইতালী প্রবাসী বায়েজিদ প্রবাসে থাকা অবস্থায় ফেসবুকে পরিচয় হয় ওই শিক্ষার্থীর। তারপরে দুজনের মধ্য প্রেমের সম্প’র্ক গড়ে ওঠে।

ওই সম্প’র্কের সূত্র ধরে রবিবার বায়েজিদ তার সহযোগীদের নিয়ে মাদারীপুর শহরের ভুঁইয়া ইন আবাসিক হোটেলে সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত থাকা অবস্থায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার ধ’র্ষণ করে। এরপর ঐ শিক্ষার্থীকে বিয়ে করতে অস্বীকার করায় সে ঘুমের ঔষধ খেয়ে আত্মহ’ত্যা চেষ্টা করে।

ধ’র্ষণের শি’কার শিক্ষার্থীর চাচাতো ভাই জানায়, ফেসবুকে পরিচয়ে তার সাথে দেখা করতে এসে এই অবস্থা হয়েছে। প্রধান আসামীকে এখনো আ’টক হয়নি।

মাদারীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রা’প্ত কর্মকর্তা(ওসি) মো. কামরুল ইসলাম মিয়া ঘ’টনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, আমরা প্রাথমিকভাবে হোটেল ম্যানেজারসহ ৪ জনকে আ’টক করেছি এবং একটি মা’মলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here