বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার স্থায়ী মুক্তি চেয়ে স্ব’রা’ষ্ট্র ম’ন্ত্রণালয়ে আবেদন করেছে তার পরিবার।

গণমাধ্যমকে বি’ষয়টি নিশ্চিত করে স্ব’রা’ষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল জানান, মুক্তির বি’ষয়ে পরবর্তী কার্যক্রমের জন্য চিঠি পাঠানো হয়েছে আইন ম’ন্ত্রণালয়ে।

বেগম জিয়ার আইনজীবী জানান, স’রকার চাইলে সাজা মওকুফও করতে পারেন। তবে দুদকের আইনজীবী বলছেন, আ’দালতের আদেশ ছাড়া স’রকারের কোন সি’দ্ধান্ত দেয়ার এখতিয়ার নেই। দু’র্নীতির দুই মা’মলায় দ’ণ্ডপ্রা’প্ত বেগম জিয়ার সাজা স্থগিতাদেশের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই এবার স্থায়ী মুক্তির আবেদন করেছে তার পরিবার। শা’রীরিক অ’সুস্থতার কথা উল্লেখ করে স্ব’রা’ষ্ট্র ম’ন্ত্রণালয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে আবেদন করেন বেগম জিয়ার ছোটভাই শামিম ইস্কান্দার।

আবেদনে উল্লেখ করা হয়, ক’রোনা পরিস্থিতির কারণে তার শা’রীরিক অ’সুস্থতার কোনো পরীক্ষা-নিরীক্ষা বা চিকিৎসা করা সম্ভব হয়নি। তাই আবারো সাজা মওকুফের আবেদন। এ বি’ষয়ে স্ব’রা’ষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল জানান, প্রথমবারের মতই বেগম জিয়ার ছোটভাই এবারও আবেদন করেছেন মুক্তির।

গত ২৫ মার্চ দুই শর্তে মানবিক কারণে স’রকারের নির্বাহী আদেশে সাজা স্থগিতাদেশের পর ছয়মাসের জন্য মুক্তি পান বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া। সেই সাজার মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর। দু’র্নীতির মা’মলায় ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি দ’ণ্ডিত হয়ে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরাতন কেন্দ্রীয় কা’রাগারে যান বেগম জিয়া। এরপরই অ’সুস্থতার কারণে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here