চলতি বছর প্রকাশিত এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলের ও’পর ভিত্তি করে সাড়ে ২৫ হাজার শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দেবে স’রকার। এদের মধ্যে ৩ হাজার শিক্ষার্থীকে মেধাবৃত্তি এবং সাড়ে ২২ হাজার শিক্ষার্থীকে সাধারণ বৃত্তি দেয়া হবে।

২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষার মেধা ও সাধারণ বৃত্তি দিতে বোর্ড ভিত্তিক কোটা বণ্টন করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)।

মাউশি সূত্রে জানা গেছে, নতুন নিয়মে বৃত্তি দিতে আগামী ২৫ আগস্টের মধ্যেই বৃত্তির গেজেট প্রকাশ করতে শিক্ষা বোর্ডগুলোকে বলা হয়েছে। জিটুপি বা ইএফটির মাধ্যমে সরাসরি শিক্ষার্থীদের অ্যাকাউন্টে বৃত্তির টাকা পাঠানো হবে।

জানা যায়, ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ঢাকা বোর্ডের ৮৭৮ শিক্ষার্থীকে মেধাবৃত্তি ও ৫ হাজার ৭০১ শিক্ষার্থীকে সাধারণ বৃত্তি দেয়া হবে।

এছাড়া ময়মনসিং বোর্ডের ১৮২ শিক্ষার্থীকে মেধাবৃত্তি ও ১ হাজার ৫৮৮ শিক্ষার্থীকে সাধারণ বৃত্তি, রাজশাহী বোর্ডের ৬৩৩ শিক্ষার্থীকে মেধাবৃত্তি ও ৩ হাজার ২৫৭ শিক্ষার্থীকে সাধারণ বৃত্তি, কুমিল্লা বোর্ডের ২৪৯ শিক্ষার্থীকে মেধাবৃত্তি ও ২ হাজার ২১৪ শিক্ষার্থীকে সাধারণ বৃত্তি, সিলেট বোর্ডের ১০৪ শিক্ষার্থীকে মেধাবৃত্তি ও ১ হাজার ৩৪৭ শিক্ষার্থীকে সাধারণ বৃত্তি, বরিশাল বোর্ডের

১০৯ শিক্ষার্থীকে মেধাবৃত্তি ও ১ হাজার ৪০৪ শিক্ষার্থীকে সাধারণ বৃত্তি, যশোর বোর্ডের ৩৩৩ শিক্ষার্থীকে মেধাবৃত্তি ও ২ হাজার ৩৭৩ শিক্ষার্থীকে সাধারণ বৃত্তি, চট্টগ্রাম বোর্ডের ২১৯ শিক্ষার্থীকে মেধাবৃত্তি ও ১ হাজার ৯২৬ শিক্ষার্থীকে সাধারণ বৃত্তি এবং দিনাজপুর বোর্ডের ২৯৩ শিক্ষার্থীকে মেধাবৃত্তি ও ২ হাজার ৬৯০ শিক্ষার্থীকে সাধারণ বৃত্তি দেয়া হবে।

মেধাবৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীদের মাসিক ৬০০ টাকা ও বছরে এককলীন ৯০০ টাকা দেয়া হবে। আর সাধারণ বৃত্তিপ্রা’প্তদের মাসে ৩৫০ টাকা এবং বছরে এককালীন ৪৫০ টাকা দেয়া হবে। বৃত্তির টাকা ২০২০-২০২১ অর্থবছরে রাজস্ব বাজেটের বৃত্তি-মেধাবৃত্তি খাত থেকে নির্বাহ করা হবে।

অধিদপ্তর সূত্র জানায়, জিপিএ-৫ পেয়ে এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ নিয়মিত শিক্ষার্থীদের মেধাবৃত্তি দেয়া হবে। বোর্ডের আওতাধীন প্রতি উপজে’লার দুইজন ছাত্র ও দুইজন ছাত্রীকে সাধারণ বৃত্তি দেওয়া হবে। আর মেট্রোপলিটন এলাকার প্রতিটি থানাতে একজন ছাত্র ও একজন ছাত্রীকে এলাকা কোটা অনুসারে সাধারণ বৃত্তি দেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here