জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজে’লায় কন্যাস’ন্তান হওয়ায় স্ত্রী’কে উপর্যুপরি ছু’রিকাঘা’তে হ’ত্যা করেছে পাষ’ণ্ড স্বা’মী। রোববার রাতে উপজে’লার সদর ইউনিয়নের খড়মা খানপাড়া গ্রামে এ ঘ’টনা ঘটে।

জানা যায়, ৪ বছর আগে একই ইউনিয়নের গামারিয়া দক্ষিণপাড়া গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে খোরশেদ আলমের (৩২) স’ঙ্গে রুবিনার (২৫) বিয়ে হয়। বিয়ের সময় ৮০ হাজার টাকা যৌ’তুক নেয় খোরশেদ।

নি’হতের পিতা ইদ্রিস আলী জানান, বিয়ের পর যৌ’তুকের জন্য তার মে’য়েকে নি’র্যা’তন করেছে। ৪০ দিন আগে তার একটি কন্যাস’ন্তান হয়। কন্যাস’ন্তান হওয়ার পর প্রায়ই বিভিন্ন ভাষায় গা’লিগা’লাজ ও নি’র্যা’তন করে খোরশেদ।

রুবিনার স্বজনরা জানান, কন্যাস’ন্তান প্রস’বের পর থেকেই রুবিনা তার পিতার বাড়িতে অবস্থান করেছে। রোববার রাতে রুবিনার পিতার বাড়িতে খাবার খায় খোরশেদ। এ সময় কাছে পেয়ে রুবিনার পেটে উ’পর্যু’পরি ছু’রিকাঘা’ত করে সে। গু’রুতর আ’হত রুবিনাকে দেওয়ানগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। তার অবস্থা আশ’ঙ্কজ’নক থাকায় চিকিৎসকরা ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। ভোর ৪টার দিকে সেখানে চিকিৎসা’ধীন অবস্থায় রুবিনা মা’রা যান।

সোমবার দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানায় নি’হ’ত রুবিনার পিতা ইদ্রিস আলী বা’দী হয়ে মাম’লা দা’য়ের করেছেন।দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানার ওসি এমএম ময়নুল ইসলাম জানান, লা’শ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে ময়’নাতদ’ন্ত হয়েছে। এ ব্যাপারে মা’মলা হয়েছে। আ’সামি ধ’রার জন্য পু’লিশ তৎপ’র রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here